এবার ১২ বলে ফিফটি গেইলের

897

মুশফিকঃ

 

 

ক্রিস গেইল যে টি-২০ ক্রিকেটে কতটা দাপুটে আবারো তার প্রমাণ দিল গতকাল সোমবার অস্ট্রেলিয়ার বিগ ব্যাশে মাত্র ১২ বলে ফিফটি হাঁকিয়ে। যদিও এ বাবদ বিশ্ব রেকর্ডটি আগেই হাঁকিয়ে রেখেছিলেন ভারতের যুবরাজ সিং। মেলবোর্ন রেনেগেডসের হয়ে অ্যাডিলেড স্ট্রাইকার্সের বিপক্ষে গেইলের এ ইনিংসটিতে ছিল সাতটি ছক্কা ও দুটি চারের মার। তিনি শেষ পর্যন্ত ১৭ বলে ৫৬ রান করে আউট হন। তার স্ট্রাইক রেট ছিল অবিশ্বাস্য, ৩২৯.৪১। গেইলের এদিনের ব্যাটিংয়ে বিগ ব্যাশের দ্রুততম ফিফটির আগের রেকর্ডটিকে (১৮ বলের) ভেঙে দেয়। এর আগে ২০০৭ টি-২০ বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ১২ বলে অর্ধশতক করে এই রেকর্ড গড়েছিলেন ভারতের যুবরাজ সিং। সেই ইনিংসটি গড়ার পথে ইংলিশ বোলার স্টুয়ার্ট ব্রডের এক ওভারে ছয়টি ছক্কা মেরেছিলেন যুবরাজ। মেলবোর্নের ডকল্যান্ডসে ক্যারিবীয় এই ব্যাটিং দানো এক ওভারে ছয় ছক্কা মারতে না পারলেও ছক্কার ঝড় তোলেন। গেইলের দল এদিন বিগ ব্যাশের ফাইনালে উঠতে হলে ১৬ ওভারে ১৭১ রানের লক্ষ্য পেয়েছিল। ওপেনার গেইল প্রথম ওভারে টানা চারটি ছক্কা মেরে শুরু করেছিলেন। তৃতীয় ওভারে ২২ রান তুলে ১১ বলে পান ৪৪ রান। চতুর্থ ওভারের প্রথম বলে ছক্কা হাঁকিয়ে তিনি ১২ বলে ৫০ পূর্ণ করেন এদিন। শেষ পর্যন্ত তিনি ষষ্ঠ ওভারে আউট হয়ে যান এবং রেনেগেডসেরও খেলাটিতে ২৭ রানে হেরে যায়। যুবরাজ-গেইলের রেকর্ডের পর টি-টোয়েন্টির দ্বিতীয় দ্রুততম অর্ধশতক মার্কাস ট্রেসকোথিকের। ২০১০ সালে ইংল্যান্ডের ফ্রেন্ডস প্রভিডেন্ট টি-টোয়েন্টিতে সমারসেটের ওপেনার ১৩ বলে অর্ধশতক করেছিলেন হ্যাম্পশায়ারের বিপক্ষে। জ্যামাইকান গেইলের দখলে আছে টি-টোয়েন্টির দ্রুততম শতকের রেকর্ডটিও। ২০১৩ সালের আইপিএলে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর হয়ে পুনে ওয়ারিয়ার্সের বিপক্ষে তিনি শতক ছুঁয়েছিলেন ৩০ বলে। রেকর্ড ১৭ ছক্কায় সেদিন ৬৬ বলে খেলেছিলেন ১৭৫ রানের রেকর্ড ইনিংস। এছাড়াও ওয়ানডে ক্রিকেটের দ্রুততম ডাবল সেঞ্চুরির রেকর্ডটিরও মালিক তিনি। ২০১৫ বিশ্বকাপে জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে মাত্র ১৩৮ বলে এ নজির গড়েছিলেন গেইল।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.