ওয়াশিংটনডিসিতে নিনা আহমেদের সমর্থনে ফান্ড রাইজিং ডিনার; প্রবাসীদের স্বতস্ফুর্ত অংশগ্রহণ

516

ওয়াশিংটনডিসি:লেফটেন্যান্ট গভর্নর পদে লড়ছেন বাংলাদেশী বংশোদ্ভুত ডা: নীনা আহমেদ,যুক্তরাষ্ট্রের পেনসিলভেনিয়া অঙ্গরাজ্যের লেফটেন্যান্ট গভর্নর পদে নির্বাচন করবেন ফিলাডেলফিয়ার সাবেক ডেপুটি মেয়র বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত ড. নীনা আহমেদ।  FB_IMG_1520824282343 এ লক্ষ্যে নিজ দল ডেমোক্র্যাটিক পার্টি থেকে মনোনয়নের জন্য তিনি জোর প্রচারণা শুরু করেছেন। তার পক্ষে নির্বাচনী তহবিল সংগ্রহে নেমেছেন প্রবাসী বাংলাদেশীরা। গত শনিবার ভার্জিনিয়ার স্প্রিংফিল্ডে ফান্ড রাইসিং এন্ড এপ্রিসিয়েশন ডিনার অনুষ্ঠিত হয়।FB_IMG_1520824385941
অনুষ্ঠানে ভার্জিনিয়া, মেরিল্যান্ড ও ডিসিতে বসবাসকারী সর্বস্তরের বাঙালিরা স্বতঃফূর্তভাবে অংশ গ্রহণ করেন।
নীনা আহমেদ এর আগে মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদে নির্বাচন করার ঘোষণা দিয়েছিলেন। কংগ্রেসানাল জেলার নির্বাচনী মানচিত্রে পরিবর্তন আসায় তিনি সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করে লেফটেন্যান্ট গর্ভনর পদে নির্বাচনের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে তার নির্বাচনী প্রচারণা দফতর থেকে জানানো হয়েছে।FB_IMG_1520822509736
পেনসিলভেনিয়া অঙ্গরাজ্যের সবচেয়ে বড় শহর ফিলাডেলফিয়া যুক্তরাষ্ট্রের পঞ্চম জনবহুল শহর। স্বাধীনতার ঘোষণা ও সংবিধান স্বাক্ষরের জন্য এই নগরী ঐতিহাসিকভাবে গুরুত্বপূর্ণ। এখানেই ডেপুটি মেয়র ছিলেন বাংলাদেশী নীনা আহমেদ। এবার পুরো অঙ্গরাজ্যের লেফটেন্যান্ট গভর্নর পদে নির্বাচনের ঘোষণা দিয়েছেন তিনি। FB_IMG_1520649365217এ লক্ষ্যে প্রতিদিনই জোর প্রচারণা চালাচ্ছেন তিনি।
অনুষ্ঠানে নীনা আহমেদ বলেন, গত ২৫ বছর তিনি পেনসিলভেনিয়াতে অন্যায়, অবিচার আর বিদ্বেষের বিরুদ্ধে লড়াই করেছেন। আগামীতেও তার সেই লড়াই অব্যাহত থাকবে।
নিজের অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে তিনি অস্ত্র আইন প্রণয়নে উদ্যোগী হওয়ার কথাও জানান।
তিনি বলেন, স্কুলের শিক্ষার্থীরা যাতে নিরাপদে থাকে, সে বিষয়টি নিশ্চিত করতে কাজ করবেন তিনি।FB_IMG_1520822537698
ফান্ড রাইজিং অনুষ্ঠানের উদ্যোক্তা, পিপল এন টেকের স্বত্ত্বাধিকারী প্রকৌশলী আবুবকর হানিফ বলেন, ডেমোক্র্যাট দলের আরও ছয়জন প্রার্থী এবার লেফটেন্যান্ট গভর্নর পদে মনোনয়নপ্রত্যাশী। এর মধ্যে বর্তমান লেফট্যানেন্ট গভর্নর মাইক স্টেকও রয়েছেন। তবে এ পদে নীনা আহমেদের মনোনয়ন প্রাপ্তির সম্ভাবনা উজ্জ্বল।
ফান্ড রাইজিং অনুষ্ঠানের আরেক উদ্যোক্তা রেদওয়ান চৌধুরী আশা প্রকাশ করে বলেন, নীনা আহমেদ ডেমোক্র্যাটিক পার্টির প্রাইমারিতে মনোনয়ন পাবেন। আর মনোনয়ন পেয়ে নির্বাচিত হলে নীনা আহমেদ হবেন আমেরিকার রাজ্য সরকারের কোনো শীর্ষ পদে প্রথম বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্যক্তি।FB_IMG_1520822534243
পেনসিভেনিয়ায় নাগরিক আন্দোলনের মূলধারার নেতা হিসেবে সবার নজরে আসেন পেশায় চিকিৎসাবিজ্ঞানী ড. নীনা আহমেদ। সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার সময়ে তার উপদেষ্টা হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি।
পুরো আমেরিকাজুড়ে প্রগতিশীল নারী আন্দোলনের সংগঠন ন্যাশনাল ওরগেনাইজেশন ফর উইম্যানের ফিলাডেলফিয়া চ্যাপ্টারের সাবেক প্রেসিডেন্ট ছিলন নিনা আহমেদ। ২১ বছর বয়সে নিনা আহমেদ আমেরিকায় আসেন। চিকিৎসাশাস্ত্রে উচ্চশিক্ষা নেওয়ার পাশাপাশি মূল ধারার নাগরিক আন্দোলনের সঙ্গে জড়িত হন তিনি। অভিজ্ঞ সংগঠক হিসেবে দ্রুতই তিনি আমেরিকার মূলধারার রাজনীতিতে পরিচিতি লাভ করেন।FB_IMG_1520824476971
আগামী ১৫ মে লেফটেন্যান্ট গভর্নর পদে ডেমোক্র্যাটিক পার্টির প্রাইমারি অনুষ্ঠিত হবে। মূল নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারছেন কি-না সেদিন ভাগ্য নির্ধারণ হবে নীনা আহমেদের। মূল নির্বাচন হবে এ বছরের ৬ নভেম্বর।
উক্ত অনুষ্ঠানটির উপস্থাপনা করেন এন্থনি পিউষ গোমেজ ও আনিকা রহমান। FB_IMG_1520649390717অনুষ্টানে বক্তব্য রাখেন ভয়েস অফ আমেরিকার রোকেয়া হায়দার, পিপলএনটেক এর প্রতিষ্ঠাতা ও সিইও আবুবকর হানিপ, সমাজকর্মী রেদওয়ান চৌধুরী, ওয়াহেদ হোসাইনী এবং মোহাম্মায়দ আলমগীর।  অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন   রিয়েলেটর মাসুদ আহসান, ইকবাল চৌধুরী,মোহাম্মদ হোসাইন, ব্যাবসায়ী মাসুদ রহমান, বোরহান,নাইম রহমান, মাজহারুল হক, প্রিয় লাল কর্মকার, এবং মোমেন্টস মাল্টিমিডিয়া গ্রূপ।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.