চলে গেলেন কফি আনান

435

নিউজ ডেস্ক:জাতিসংঘের সাবেক মহাসচিব কফি আনান আর নেই। বার্ধক্যজনিত অসুস্থায় ভুগে শনিবার (১৮ আগস্ট) সকালে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন। তার বয়স হয়েছিল ৮০ বছর। খবর সিএনএন।131577_f2
১৯৩৮ সালে ঘানায় জন্ম নেন কফি আনান। এ কূটনীতিক সুইজারল্যান্ডে ছিলেন। সেখানেই তিনি বার্ধক্যজনিত অসুস্থতায় ভুগছিলেন। তার মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছে জাতিসংঘ অভিবাসন সংস্থা আইওএম।
১৯৯৭ থেকে ২০০৬ পর্যন্ত জাতিসংঘ মহাসচিব পদে দায়িত্ব পালনকালে বিশ্বশান্তিতে অবদানের জন্য ২০০১ সালে যৌথভাবে নোবেল পুরস্কার অর্জন করেছিলেন কফি আনান। মানবাধিকার নিয়ে কাজ করা বিশ্ব নেতাদের সংগঠন দ্য এল্ডারসের সদস্য ছিলেন তিনি। ২০১৩ সালে তিনি সংস্থাটির চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। ২০০১ সালের ১২ অক্টোবর তিনি জাতিসংঘের সাথে যৌথভাবে নোবেল পুরস্কারে ভূষিত হন।
মিয়ানমারে সংখ্যাগরিষ্ঠ বৌদ্ধ এবং সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলমানদের মাঝে সম্পর্ক উন্নয়নে প্রচেষ্টা চালাতে জাতিসংঘের সাবেক মহাসচিব কফি আনান জড়িত ছিলেন। তাকে প্রধান করেই মিয়ানমার সরকার রোহিঙ্গা সম্পর্কিত কমিশন গঠন করেছিল।

গত বছরের আগস্ট মাসের শেষের দিকে কফি আনান রাখাইন রাজ্যের ব্যাপারে গঠিত কমিশনের চূড়ান্ত প্রতিবেদন জমা দেন। এই কমিশনের সভাপতি হিসেবে তিনি মিয়ানমারের কার্যত নেতা অং সান সুচির কাছে কিছু সুপারিশ বাস্তবায়নের অনুরোধ জানান।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.