চিকিৎসার অভাবে আস্তে আস্তে কালো হয়ে যাচ্ছে শিশুটি

1,079

শাপলা রহমান:

 

 

সড়ক দুর্ঘটনায় আহত  অজ্ঞাত এ শিশুটিকে কে বা কারা যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে।সেই থেকেই সার্জারী ওয়ার্ডের ফ্লোরে অযত্ন-অবহেলায় দিন কাটছে তার। মাত্র ১২ দিনের ব্যবধানে চেহারা বিদঘুটে হয়ে উঠেছে। ক’দিন আগেও তার চেহারা ছিল চকচকে। এখন চেনা যাচ্ছে না তাকে। বয়স হবে ১০-১১ বছর। ভর্তির পর থেকে এখনও জ্ঞান ফেরেনি তার। বর্তমানে তার চেহারটি কালো ঘুটঘুটে হয়ে উঠেছে। ডাক্তার পরামর্শ দিয়েছেন ছেলেটির মাথায় আঘাত লাগার কারনে সিটিস্ক্যান করা জরুরী। কিন্তু কে নিবে দায়িত্ব। ফলে ওভাবেই পড়ে আছে শিশুটি। প্রতিদিন প্রায় ৭০০/৮০০ টাকার ওষুধ লাগছে। দু-একটি সংগঠনের পক্ষ থেকে তা দেয়া হচ্ছে। কিন্তু সিটিস্ক্যান করতে প্রায় সাতে তিন হাজার টাকায় প্রয়োজন। সিটিস্ক্যানের অভাবে কাঙ্খিত চিকিৎসাও দিতে পারেছেন না চিকিৎসকরা। তারা বার বার সিটিস্ক্যানের জন্য তাকিদ দিচ্ছেন।

 

তাই সকলকে এই শিশুটির পাশে দাঁড়ানোর জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ করা হচ্ছে। আপনি হাত বাড়ালে হয়তো বাঁচতে পারে শিশুটি। সাহায্য পাঠানোর জন্য যোগাযোগ করুন ০১৭১৫-৭১৫২৭৮। ই-মেইলঃ [email protected]

Leave A Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.