নিউ ইয়র্কের জেএফকে বিমানবন্দরে বিএনপির প্রতিবাদ সমাবেশ

172

নিউ ইয়র্ক প্রতিনিধি: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যুক্তরাষ্ট্রে আগমনকে কেন্দ্র করে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি ও সকল অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মিরা এক প্রতিবাদ কর্মসুচি পালন করেছেন। গত রবিবার বিকেলে নিউ ইয়র্কের জন এফ কেনেডি (জেএফকে) বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বর্তমান সরকার বিরোধী বিভিন্ন
শ্লোগান দেন। জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের ৭২তম অধিবেশনের ভাষণ দেওয়ার সময় জাতিসংঘ সদর দপ্তরের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি।facebook_1505794375506
জাতিসংঘের ৭২তম সাধারণ অধিবেশনে যোগ দিতে আসা প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী ইত্তিহাদ এয়ারওয়েজের ফ্লাইট এয়ারবাস ইওয়াই-১০১ নিউ ইয়র্কের স্থানীয় সময় রবিবার বিকেলে ৪টা ২০ মিনিট (বাংলাদেশ সময় রাত ২টা ২০ মিনিট) নিউ ইয়র্কে পৌঁছান। বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের প্রচুর নেতা-কর্মিদের সমাগম ঘটে এ প্রতিবাদ সমাবেশে। তারা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উদ্দেশ করে ‘স্বৈরাচার’ ও ‘গণবিরোধী’ বলে স্লোগান দিতে থাকেন। জানা গেছে, দলীয় কোন্দলের কারণে অনেকেই বিএনপির সমাবেশ প্রতিহত করতে আসেনি।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অনির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী উল্লেখ করে উপস্থিত বিএনপি নেতারা শেখ হাসিনাকে অবৈধ রাষ্ট্রপ্রধান হিসেবে ঘোষনা করেন। প্রতিবাদ সমাবেশে বিএনপি নেতারা বলেন, গত ভোটারবিহীন অগণতান্ত্রিক ও প্রহসনের নির্বাচনে নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রীর দাবিদার শেখ হাসিনার জাতিসংঘে ভাষণ দেওয়ার কোনই অধিকার নেই। কারণ তিনি জনগণের ভোটে নির্বাচিত হননি। যুক্তরাষ্ট্রের যেখানেই হাসিনা সেখানেই প্রতিরোধ আন্দোলন সর্বাত্মক ভাবেই সফল হয়েছে বলে জানান বিএনপির সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শরাফত হোসেন বাবু ও সাবেক কোষাধ্যক্ষ জসিম উদ্দিন ভুঁইয়া। তাঁরা বলেন, দেশের সাধারন মানুষকে খুন গুম আর ভয়াবহ আতংকের মধ্যে রেখে প্রতিবছর জাতিসংঘে এসে শান্তির কথা বলে বিশ্ববাসীর কাছে মিথ্যাচার করে থাকেন শেখ হাসিনা। তাই যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মিরা এ ধরনের মিথ্যা ভাষনের তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছে।facebook_1505794402471
নেতারা বলেন, বর্তমান আওয়ামীলীগ সরকার অনির্বাচিত ও অগণতান্ত্রিক সরকার। তাঁরা দেশের বিরোধী দলের নেতাকর্মিদের উপর জেল-জুলুমসহ হত্যার রাজনীতি করছে। এ বিক্ষোভ সমাবেশে অবিলম্বে শেখ হাসিনার পদত্যাগ ও তত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবি জানান নেতারা। এ সময়ে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরাও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে স্বাগত জানিয়ে বিভিন্ন ধরনের শ্লোগান দিতে থাকলে উত্তেজনাকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। শত শত বিদেশি যাত্রীরা এ দৃশ্যটি উপভোগ করেন।
প্রতিবাদ সমাবেশে বকতব্য দেন বিএনপির সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শরাফত হোসেন বাবু, সাবেক কোষাধ্যক্ষ জসিম উদ্দিন ভুইয়া,  নিউ ইয়র্ক স্টেট বিএনপির সভাপতি মাওলানা আতিকুর রহমান আতিক,  সাধারন সম্পাদক সাঈদুর রহমান সাঈদ,  সিটি বিএনপির সভাপতি হাবিবুর রহমান সেলিম রেজা,  সাধারন সম্পাদক আশারাফ হোসেন, তারেক রুহমান আন্তর্জাতিক পরিষদের সভাপতি জাহাঙ্গীর এম আলম, সাধারন সম্পাদক রুহুল আমিন নাছির, জাসাসের সিনিয়র সহ-সভাপতি রিয়াজ চৌধুরী, সিটি বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক আলমগীর মৃধা, যুক্তরাষ্ট্র ছাত্রদলের সভাপতি পরান চৌধুরী, সাধারন সম্পাদক অর্ণব রুবেলসহ অনেকেই বক্তব্য দেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.