ফেইথফুল সোস্যাল অর্গানাইজেশনের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত

848

নিউজবিডিইউএস ডেস্ক:

 

 

সামাজিক সংগঠন ফেইথফুলের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী গতকাল ২২ জানুয়ারী শুক্রবার রাজশাহী মহানগরীর বহরমপুরস্থ ইনোসেন্ট চাইল্ড একাডেমিতে পালিত হয়েছে। সংগঠনটির ২য় বর্ষপূর্তি ও ৩য় বর্ষে পদার্পন উপলক্ষে ‘২য় বর্ষপূর্তি ও দোয়া অনুষ্ঠান’ -এর আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ রেলওয়ের এটিসিই জনাব মোঃ আব্দুস সালাম খান। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইনোসেন্ট চাইল্ড একাডেমির সভাপতি জনাব মোঃ আহমাদুল হক, ইনোসেন্ট চাইল্ড একাডেমির পরিচালক জনাব মোঃ সালাউদ্দিন। এছাড়াও সংগঠনটির উপদেষ্টা পরিষদ, সদস্যবৃন্দসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে এবারের এসএসসি (২০১৬ ইং) পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষার সামগ্রী উপহার দেয়া হয়।

 

 

অনুষ্ঠানটি কুরআন তেলওয়াতের মাধ্যমে শুরু হয়। প্রধান অতিথি কেক কেটে অনুষ্ঠানটির উদ্বোধন করেন। স্বাগত বক্তব্যে সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাতা ও প্রেসিডেন্ট মুহাঃ হাসানুল বান্না খান সংগঠনটির লক্ষ্য-উদ্দেশ্য ও কর্মসূচি তুলে ধরেন। তিনি বলেন, আমরা সমাজে একত্রিভাবে বসবাস করি। সুতরাং আমাদের পাশেই কিছু মানুষ রয়েছেন যারা তাদের কষ্টের কথা কাউকে বলতে পারেন না। কিন্তু আমরাও যদি তাদের খোজ-খবর না নিই, তাহলে সত্যিই কি আমরা সমাজবদ্ধভাবে বাস করি? কেননা সমাজের এক অংশ পড়ে থাকবে আর তাদেরকে বাদ দিয়ে আমরা উন্নতির উচ্চতায় পৌছে যাব! আসলেই কি সেটা সম্ভব? সে কারনেই দায়িত্ব মনে করে আমরা এ সংগঠনটি নিয়ে কাজ শুরু করেছি। এছাড়াও তিনি আরো বলেন, সকলকে নিয়ে আমি একত্রে কাজ করতে চাই। যদিও আমরা ছোট সংগঠন কিন্তু আমরা চাই সকলকে সাথে নিয়ে এগিয়ে যেতে। তিনি সকলকে সংগঠনটির সাথে কাজ করার ও সহায়তা করার আহ্বান জানান।

 

 

সংগঠনটির উপদেষ্টা জনাব আব্দুর রাজ্জাক রিপন তার বক্তব্যে শিক্ষার গুরুত্ব তুলে ধরেন। তিনি সংগঠনটির শিক্ষা কার্যক্রমের প্রশংসা করে বলেন, আমি শুরু থেকে সংগঠনটির কার্যক্রমের সঙ্গে আছি এবং তাদের বিভিন্ন শিক্ষা বিষয়ক কার্যক্রম আমাদের খুবই আনন্দিত করছে। তারা এককালীন এবং নিয়মিতভাবে দরিদ্র শিক্ষার্থীদের সাহায্য করে যাচ্ছে তা খুবই প্রশংসনীয়। এছাড়া আজ তারা এবারের (২০১৬ ইং) এসএসসি শিক্ষার্থীদের পরীক্ষার সামগ্রী উপহার দিচ্ছে। এটা শিক্ষার্থীদের জন্য খুবই ভাল হয়েছে। ভবিষ্যতেও তারা এধরনের কার্যক্রম পরিচালনা করবে বলে আমি আশা করি এবং ব্যক্তিগত ভাবে আমার সাধ্য অনুযায়ী তাদের পাশে থাকার চেষ্টা করবো।

 

 

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, ছোটরাও যে সামাজিক কাজ করার মাধ্যমে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে তা ফেইথফুল সোস্যাল অর্গানাইজেশনকে দেখলে বোঝা যায়। তারা সকলেই ছাত্র, কিন্তু তাদের গুরুত্বপূর্ণ সময় ও শ্রম দিয়ে সমাজের সেবা করে যাচ্ছে যা সত্যি প্রশংসনীয়। আমি তাদের বলতে চাই, তোমরা যেমন অন্যদের শিক্ষা-চিকিৎসার বিষয়ে সহায়তা করছ ঠিক তেমনি তোমাদেরও পড়াশোনা ঠিক রাখবে। কারন তোমরাই আগামীতে দেশের জন্য কাজ করবে।

 

 

এছাড়া অনুষ্ঠানে আরোও বক্তব্য রাখেন, সংগঠনটির এডুকেশন সেক্রেটারি ইব্রাহীম আরাফাত খান, পাবলিসিটি সেক্রেটারি আবু সাইদ, মোঃ সালাউদ্দিন, আঁচড় ক্রাফটের পরিচালক এস এম এমদাদুর রহমান। বিশেষ অতিথি জনাব মোঃ আহমাদুল হক তার বক্তৃতার শেষে একটি কবিতা আবৃত্তি করেন। শিক্ষার্থীদের উপকরণ বিতরণ ও আপ্যায়নের মাধ্যমে অনুষ্ঠানটির সমাপ্তি ঘটে। দোয়া পরিচালনা করেন মাওলানা মোঃ মনসুর রহমান। অনুষ্ঠানটির পরিচালনায় ছিলেন মোঃ হাসিবুল হাসান। সার্বিক সাহায়তা করে আঁচড় ক্রাফটস্।

 

 

উল্লেখ্য সংগঠনটি গত ২০১৩ ইং সালের ২৭ ডিসেম্বর তাদের যাত্রা শুরু করে। শিক্ষা সম্প্রসারণ, চিকিৎসা সেবা ও স্ব-উদ্যোগে কর্মসংস্থান সৃষ্টি ও উদ্বুদ্ধকরণ ইত্যাদি কর্মসূচি নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.