বর্তমান চ্যাম্পিয়ন শ্রীলঙ্কাকে পরাজিত করে বাংলাদেশ ঐতিহাসিক জয়

257

এশিয়া কাপ ক্রিকেটে বাংলাদেশ ঐতিহাসিক জয় পেয়েছে। রোববার মিরপুরে টাইগাররা ২৩ রানে পরাজিত করেছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন শ্রীলঙ্কাকে। উদ্দীপ্ত টাইগারদের সামনে পরাজয় মেনে নেয়া ছাড়া আর কোনো গত্যান্তরই ছিল না শ্রীলঙ্কানদের কাছে। এই জয়ের ফলে এশিয়া কাপের ফাইনালে খেলার সম্ভাবনা জিইয়ে রাখল বাংলাদেশ। তাছাড়া এই প্রথম শ্রীলঙ্কাকে টি২০ ক্রিকেটে হারালো টাইগাররা।

টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশ নির্ধারিত ২০ ওভারে করে ৭ উইকেটে ১৪৭ রান। জবাবে শ্রীলঙ্কা করে ১২৪ রান, ৮ উইকেটে। ২টি করে উইকেট নিয়েছেন সাকিব আল হাসান ও আল আমিন।, একটি করে নিয়েছেন, মাশরাফি, মুস্তাফিজ ও মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ।

দিলশানকে বিদায় করেছেন সাকিব আল হাসান। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ইনিংসের দ্বিতীয় বলেই তাসকিন আহমেদের বলে বলে লংকান ওপেনার চান্দিমালের ক্যাচ ফেলেছিলেন সৌম্য সরকার। কিন্তু চতুর্থ ওভারে সেই ভুল আর করেননি সৌম্য। সাকিব আল হাসানের প্রথম বলেই তিলকরত্নে দিলশানের (১২ রান) ক্যাচ লুফে নেন তিনি। আর মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ বিদায় করেন চান্ডিমালকে (৩৭)।

এর আগে রোববার মিরপুরে এশিয়া কাপ ম্যাচে টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নামে মাশরাফির বাংলাদেশ। কিন্তু শুরুটা ভাল হয়নি স্বাগতিকদের, ইনিংসের দ্বিতীয় বলেই ওপেনার মোহাম্মদ মিথুন শ্রীলংকান অধিনায়ক অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজের এলবিডব্লিউ এর শিকার হন দলীয় শূন্য রানে। পরে দ্বিতীয় ওভারের তৃতীয় বলে আরেক ওপেনার সৌম্য সরকারও ব্যক্তিগত শুন্য রানে আউট হয়ে সাজঘরে ফিরে যান। কুলাসেকারার বলে ম্যাথুজের ক্যাচে পরিণত হন তিনি, দলীয় সংগ্রহ তখন ২ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে ২ রান।

শুরুতেই বিপর্যস্ত দলকে এগিয়ে নিতে সাব্বির রহমান ও মুশফিকুর রহিম জুটি বাঁধলেও তারা বেশিদূর এগুতো পারেননি। ব্যাক্তিগত ৪ রানে মুশফিক রান আউট হয়েছেন ইনিংসের ৪.৫ ওভারে। তবে ২৭ রানেই ৩ উইকেট হারানো বাংলাদেশকে লড়াই করার মত পুঁজি এনে দেন সাব্বির রহমান।

টি২০ ক্রিকেটের মেজাজটা যে বেশ ভালই রপ্ত করেছেন তিনি তা আরেকবার শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রমাণ করলেন। ইনিংসের শুরু থেকেই যখন এক প্রান্তে বাংলাদেশী ব্যাটসম্যানদের আসা-যাওয়ার মিছিল, তখন অপর প্রান্তে সাব্বিরের ব্যাট উজ্জ্বল। লঙ্কান বোলারদের ওপর রীতিমতো তাণ্ডবই চালিয়েছেন বাংলাদেশের এই তরুণ ক্রিকেটার। ১৬তম ওভারের শেষ বলে চামিরার বলে জয়াসুরিয়ার ক্যাচে পরিণত হওয়ার আগে তিনি ৫৪ বলে ৮০ রান করেছেন। ১০ চার ও ৩ ছক্কায় ইনিংসটি সাজিয়েছেন তিনি।

এদিকে সাব্বিরের বিদায়ের পর কিছুটা ঝড়ো ব্যাটিং করেন সাকিব আল হাসান। কিন্তু ১৭.২ ওভারে চামিরার বলে চান্দিমালের ক্যাচে পরিণত হন তিনি। ৩৪ বলে ৩ চারে ৩২ রান সংগ্রহ করেন তিনি। শেষদিকে মাহমুদুল্লাহ এর ১২ বলে ২৩ রানের ঝড়ো ইনিংসে বাংলাদেশ নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৪৭ রান সংগ্রহ করে।
ইনজুরির কারণে দলের বাইরে থাকেন শ্রীলঙ্কার নিয়মিত অধিনায়ক লাসিথ মালিঙ্গা। তার পরিবর্তে শ্রীলঙ্কাকে এই ম্যাচে নেতৃত্ব দিচ্ছেন সাবেক অধিনায়ক অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস। আর মালিঙ্গার পরিবর্তে দলে নামে থিসারা পেরেরা। অন্যদিকে আগের ম্যাচের স্কোয়াড অপরিবর্তিত রেখেই মাঠে নামে বাংলাদেশ।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.