বাংলাদেশ ভিসা না দেওয়ায় রোহিঙ্গাদের আনতে পারছে না কানাডা

161
নিউজবিডিইউএস:বাংলাদেশ সরকার ‘এক্সিট ভিসা’ দিতে রাজি না হওয়ায় মিয়ানমার থেকে প্রাণ বাঁচাতে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের একজনকেও কানাডা আশ্রয় দিতে পারবে না। বাংলাদেশ সরকার ‘এক্সিট ভিসা’ ইস্যূ না করলে আন্তর্জাতিক রীতি অনুসারে কানাডা তাদের আশ্রয় দিতে পারে না।cana
আর বাংলাদেশ এই ভিসা বা এক্সিট পারমিট ইস্যূ করতে রাজি না।কানাডার ইমিগ্রেশন মন্ত্রী আহমেদ হোসেন এ তথ্য জানিয়েছেন।
ইমিগ্রেশন মন্ত্রী স্বীকার করেন রোহিঙ্গাদের কানাডায় পূণর্বাসনের কোনো পরিকল্পনা এই মুহূর্তে লিবারেল সরকারের নেই। তিনি বলেন, আর সেটি থাকলেও বাংলাদেশ সরকারের সিদ্ধান্তের কারণে তা বাস্তবায়ন করা সম্ভব হবে না। তিনি বলেন, বাংলাদেশ সরকারে সেদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের জন্য এক্সিট ভিসা ইস্যূ করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে।
ইমিগ্রেশন মন্ত্রী জানান, কোনো কোনো দেশে এক্সিট ভিসা বা এক্সিট পারমিট এর নিয়ম থাকে। সেইসব দেশে গেলে ওই দেশের অনুমোদন ছাড়া আর দেশ ত্যাগ করা যায় না।
কানাডার ইমিগ্রেশন মন্ত্রী বলেন, রোহিঙ্গাদের জন্য এক্সিট পারমিট সমস্যাটা নতুন কিছু নয়। ২০০৬ সালে কানাডা সরকার এক্সিট ভিসা ইস্যূ করার ব্যাপারে বাংলাদেশ সরকারকে রাজি করাতে অনেক দেন দরবার করেছে। সে সময় কানাডাই প্রথম দেশ যারা রোহিঙ্গাদের পূণর্বাসনের জন্য এগিয়ে এসেছিলো।
মন্ত্রী জানান, ২০০৬ থেকে ২০১০ সালের মধ্যে কানাডা ৩০০ রোহিঙ্গাকে কানাডায় পূনর্বাসন করেছে। ১৯৯০ সাল থেকে এরা বাংলাদেশে রোহিঙ্গা শিবিরে বসবাস করছিলো। কানাডাকে অনুসরন করে যুক্তরাজ্য এবং অষ্ট্রেলিয়াও এক্সিট ভিসা ইস্যূ করার জন্য বাংলাদেশের সঙ্গে দেনদরবার করেছে।
মিয়ানমার থেকে উচ্ছেদ হওয়া রোহিঙ্গাদের ভবিষ্যতে কি হবে সে ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করা এখনি সম্ভব নয় বলে উল্লেখ করে কানাডীয়ান মন্ত্রী বলেন, আমরা যে কোনো পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা ও মূল্যায়ন করার জন্য খোলামনে প্রস্তুত আছি। ভবিষ্যতে পূনর্বাসনের প্রশ্নে জাতিসংঘের সাথে একযোগে কাজ করে যাওয়ার জন্য কানাডা প্রস্তুত হয়ে আছে।

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.