মুনা ভ্যালী ক্যালিফোর্নিয়া চ্যাপ্টারের ইফতার মাহফিল সম্পন্ন

398

আহমেদ ফয়সাল, ক্যালিফোর্নিয়া

“রমজান মাস রহমতের মাস। রমজান মাস বরকত, মাগফিরাত ও নাজাতের মাস। পবিত্র এই মাসে আল্লাহ্‌ রাব্বুল আ’লামীন কুর’আন নাজিল করেন। এই মাসে এমন বরকতময় এক রাত্রি আছে যে রাত্রির ইবাদতকে হাজার মাসের ইবাদতের চেয়েও উত্তম বলা হয়েছে। ‘লাইলাতুল কদর’ নামক হাজার মাসের চেয়ে বরকতময় এই রাত্রিকে শেষের দশ রোজার বেজোড় রাত্রিতে খুঁজতে বলা হয়েছে।’ কথাগুলি বলছিলেন মুসলিম উম্মাহ অব নর্থ আমেরিকা মুনা (MUNA) ওয়েস্ট জোন প্রেসিডেন্ট আনিসুর রহমান। তিনি গত ১৮ই জুন মুনা’র ‘ভ্যালী ক্যালিফোর্নিয়া চ্যাপ্টার’ আয়োজিত এক ইফতার অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছিলেন। আনিসুর রহমান আরো বলেন, “ক্কাআব বিন ঊজাইর রাজি আল্লাহু তা’আলা আনহু (রা.) থেকে বর্ণিত, একবার জুমার খুৎবা দেওয়ার জন্য রাসূলুল্লাহ (সা.) যখন মিম্বরের প্রথম সিঁড়িতে পা রাখেন, তখন বলেন আমীন। দ্বিতীয় সিঁড়িতে যখন পা রাখেন, তখন বলেন আমীন। একইভাবে তৃতীয় সিঁড়িতে পা রেখেও বলেন, আমীন।

13493349_126629774429766_200677775_o

নামায শেষে সাহাবীরা রাসূলুল্লাহকে (সা.) তিনবার অস্বাভাবিকভাবে আমীন বলার কারণ জিজ্ঞেস করলে তিনি বলেন, “আমি যখন মিম্বরের প্রথম সিঁড়িতে পা রাখি, তখন জিব্রাইল আলাইহিসসাল্লাম (আ.) ওহী নিয়ে আসেন এবং বলেন, ‘ধ্বংস হয়ে যাক সেই ব্যক্তি, যে রমজান মাসের রোজা পেল অথচ গুনাহ মাফ করাতে পারল না’, এর জবাবে আমি প্রথমবার আমীন বললাম ।

দ্বিতীয় সিঁড়িতে পা রাখার সময় জিব্রাইল (আ.) বললেন, ‘ধ্বংস হয়ে যাক সে, যার সামনে আপনার নাম নেওয়া হলো অথচ দরুদ পড়ল না’, জবাবে আমি দ্বিতীয়বার আমীন বললাম।

তৃতীয় সিঁড়িতে যখন পা রাখলাম, জিব্রাইল (আ.) বললেন, ‘ধ্বংস হয়ে যাক সে, যে বা যারা তার মা-বাবা কিংবা উভয়ের যে কোনো একজনকে পেল অথচ তাদের খেদমত করে জান্নাত হাসিল করতে পারল না, জবাবে বলেছি আমীন।”

13523801_126629764429767_501438548_o

ভ্যালী ক্যালিফোর্নিয়া চ্যপ্টারের প্রেসিডেন্ট আব্দুল মুকিত আযাদের সভাপতিত্বে এবং সৈয়দ হাবিবুর রহমান ও মুনিরুল আহসান মুনিরের পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন মুনা লস এঞ্জেলেস চ্যাপ্টারের প্রেসিডেন্ট আশরাফ হোসেন আকবর ও কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব ও বাফলা’র সেক্রেটারি লে:(অব) জিয়া ইসলাম।

13523757_126629797763097_1051704153_o

তিন শতাধিক লোকের এই ইফতার অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন,  ভ্যালি চ্যাপ্টার সেক্রেটারি সৈয়দ হাবিবুর রহমান, অরেঞ্জ কাউন্টি চ্যাপ্টার সেক্রেটারি ইঞ্জিনিয়ার ইসমাইল হোসেন, মুনিবুর রহমান মিলন, আলী আযম, জাভেদ হাসান প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে আশিকুল ইসলাম পল্লবের সুরেলা কন্ঠে ইসলামি সংগীত পরিবেশিত হয়। তিন শতাধিক লোকের এই ইফতার অনুষ্ঠানটি ছিলো অত্যন্ত সুশৃঙ্খল ও পরিপাটি।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.