যুক্তরাষ্ট্রে মারা যাওয়া দুই তরুণের জানাজায় অশ্রু সিক্ত মানুষের ঢল

158

অনলাইন ডেস্ক:অবৈধ পথে দালালকে টাকা দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে আসার পথে নদীতে ডুবে মারা যাওয়া বাংলাদেশী দুই তরুণের লাশ ১৭ দিন পর ১ জুন শুক্রবার রাতে টেক্সাস থেকে নিউইয়র্কে আসে। ৩ জুন রোববার ব্রুকলীনে বাংলাদেশ মুসলিম সেন্টারে দুই তরুণের জানাযায় অশ্রু সিক্ত মানুষের ঢল নামে।0EB5988B-7641-419F-8E8B-D9FC2C3B0359-1024x614
এ সম্পর্কে ড্রামের অন্যতম সদস্য আহসান হাবিব আওয়াজবিডিকে বলেন, “আসুন আমরা সোচ্চার হই কেননা অভিবাসীর অধিকার মানবধিকার এবং প্রতিকূল অভিবাসন নীতি ও বিপজ্জনক সীমান্ত অতিক্রম এই মৃত্যু ও লাশের মিছিলকে ক্রমাগত ভারি করে তুলছে।”61C9E727-636A-427E-848F-9189BF0CCE91
তিনি আরো বলেন, একজন ড্রাম পরিবারের সদস্য হিসাবে গর্ব সহকারে ড্রাম সংঘটন এবং বৃহত্তর নোয়াখালী সোসাইটিকে এই অতি মানবীয় কর্মের জন্য কৃতজ্ঞতা জানাই।C7B056EA-4DC5-47A8-9EF0-7B83FFC726AE
উল্লেখ্য,  গত ১৪ মে শাহাদাত হোসেন নয়ন (১৮) ও মাইনুল হাসান হৃদয়(২১)’র লাশ টেক্সাস-মেক্সিকো সীমান্ত সংলগ্ন ওয়েব কাউন্টিতে রাইয়ো গ্র্যান্দে নদী থেকে উদ্ধার করা হয়। দালালকে মোটা টাকা দিয়ে আরো কয়েকজনের সাথে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে তারা বিভিন্ন দেশ ঘুরে মেক্সিকো হয়ে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশকালে করুণ মৃত্যুর শিকার হন। তাদের দুজনের বাড়ী নোয়াখালী জেলার সোনাইমুড়ী ও বেগমগঞ্জ উপজেলায়। উভয়েই ছিলেন পিতা-মাতার একমাত্র পুত্র সন্তান।3A096C55-A35F-4FC1-AD91-173D5372D978
তারপর মানবাধিকার সংগঠন ড্রাম এর নির্বাহী পরিচালক কাজী ফৌজিয়া এবং বৃহত্তর নোয়াখালী সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক জাহিদ মিন্টুর কয়েক সপ্তাহের নিরলস প্রচেষ্টার ফলশ্রুতিতে তাদের লাশ নিউইয়র্কে ফিরিয়ে আনা এবং বাংলাদেশে তাদের পরিবারের কাছে পৌঁছানো সম্ভবপর হচ্ছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.