যুক্তরাষ্ট্রে ১৪ বছরের ছাত্র যখন গভর্নর প্রার্থী

194

চৌদ্দ বছর বয়সী আমেরিকান স্কুলগামী কিশোর যার অধিকাংশই বেসবল খেলায় মজে থাকে, মেয়েদের পিছনে পিছনে দৌড়ায়,  স্কুলের  হোমওয়ার্ক ফাঁকি দেওয়ায় মত্ত থাকে । আর এই  বয়সেই কিনা দেশের গভর্নর হতে চায় । হ্যাঁ এমনটি ঘটতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের । ইথান সনর্বন নামের এক স্কুলবয় আসন্ন মধ্যবর্তী  নির্বাচনকে সামনে রেখে ভারমন্ট অঙ্গরাজ্যে প্রাথমিক নির্বাচনে ১৪ বছর বয়সী এক স্কুলছাত্র প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এতো অল্প বয়সেই এমন একটি পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতাই অবাক করেছে সবাইকে।

জানা গেছে, উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্যটির সংবিধানে গভর্নর পদের পার্থীদের জন্য বয়স সীমার কোন উল্লেখ নেই । অর্থাৎ যে কোনো বয়সের কেউ এ পদে প্রার্থী হতে পারে। কেবল রাজ্যে  কমপক্ষে চার বছর বসবাসের রেকর্ড থাকলেই হলো । কিশোর ইথান অদ্ভুদ এই আইনের সদ্বব্যবহার করছেন । জন্ম থেকেই পরিবারের সাথে সে ভারমন্টে বসবাস করছে সে । তাই প্রার্থী হতে চার বছেরে যে শর্ত রয়েছে তাতে কোন সমস্যা নেই তার । যেহেতু কোন বাঁধা নেই তাই জোরেশোরেই প্রচারণায় নেমেছে সে ।

যুক্তরাষ্ট্রে ভারমন্ট ও কানসাস অঙ্গরাজ্যের গর্ভনর প্রার্থীদের ক্ষেত্রে কোনো বয়সসীমা নেই। এ কারণে নির্বাচনে অংশ নিতে পারছেন তিনি। প্রাথমিক নির্বাচনে চারজন ডেমোক্রেটিক প্রার্থীর বিরুদ্ধে লড়বেন সনবর্ন। সনবর্ন বলেন,  নতুন প্রজন্মের নেতৃত্ব আমাদের অঙ্গরাজ্যের জন্য আরো ভালো কাজ করতে পারবে বলে মনে হয়েছে আমার।

তার নির্বাচনী প্রচারণায় আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ন্ত্রণ, স্বাস্থ্যসেবার সংস্কার, অর্থনৈতিক উন্নয়ন এবং শিক্ষা গুরুত্ব পেয়েছে। সনবর্ন বলেন, নতুন প্রজন্মের নেতৃত্ব আমাদের অঙ্গরাজ্যের জন্য আরো ভালো কাজ করতে পারবে। তাড়াছা ২০১৮ সাল হচ্ছে এমন একটি বছর যেখানে সব স্তরের মানুষ, যে অংশের মানুষ সাধারণত রাজনীতিতে জড়ান না, তারাও এবার নির্বাচন করছেন এবং আমিও তাদেরই একজন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.