যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের অনুষ্ঠানে যুবলীগের বহিস্কৃত নেতাকে বক্তব্য রাখার সুযোগ দেয়ার প্রতিবাদ ও ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগ

1,187

 

নিউজবিডিইউএস ডেস্কঃ

 

 

বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে গত ১৪ জানুয়ারী আলোচনা সভা করে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ। যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ সভাপতি ডক্টর সিদ্দিকুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভার এক পর্যায়ে যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগ সাধারন সম্পাদক পরিচয়ে ফরিদ আলমকে বক্তব্য রাখার সুযোগ দেয়া হয়। ফরিদ আলম যুবলীগের বহিস্কৃত নেতা দাবী করে যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগের আহবায়ক তারেক হায়দার চৌধুরী প্রতিবাদ ও ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন। গণমাধ্যমে পাঠানো এক প্রতিবাদ লিপিতে তিনি জানান, বিশৃংখলা ও সংগঠন বিরোধী কর্মকান্ডের কারনে ইতোমধ্যেই ফরিদ আলমকে যুবলীগ থেকে বহিস্কার করা হয়েছে। অথচ ওই অনুষ্ঠানে ফরিদ আলমকে যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগের সাধারন সম্পাদক হিসেবে পরিচয় করে দিয়ে বক্তব্য রাখার সুযোগ দেয়া হয়। এর ফলে যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগের নেতাকর্মিরা চরমভাবে ক্ষুব্ধ হয়েছেন।

 

 

একই সঙ্গে আওয়ামী লীগের এ অনুষ্ঠানে যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগ আহবায়ক কমিটির কোন নেতাকে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি বলেও অভিযোগ করা হয়েছে। ড. সিদ্দিকুর রহমানকে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের অভিভাবক উল্লেখ করে তারেক হায়দার প্রশ্ন রাখেন, তাঁর সভাপতিত্বে কিভাবে বহিস্কৃত, বিতর্কিত ও বিশৃংখলা সৃষ্টিকারী ব্যক্তি বক্তব্য দিলেন? এ বিষয়ে যুক্তরাষ্ট যুবলীগ এর পক্ষ থেকে তীব্র প্রতিবাদের পাশাপাশি দলের সভানেত্রী শেখ হাসিনা, সজীব ওয়াজেদ জয় এবং বাংলাদেশ যুবলীগ চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরীকে দায়ীদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী জানানো হয়েছে বিবৃতিতে। অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ সরকারের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল প্রধান অতিথি এবং বিটিআরসির চেয়ারম্যান ড.শাহজাহান মাহমুদ বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

 

 

জানুয়ারী ২০, ২০১৬ ইং/নিউজবিডিইউএস/প্রেস বিজ্ঞপ্তি

Leave A Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.