রোববার খালেদা জিয়াকে আদালতে নেওয়া হচ্ছে না

196

বাংলাদেশ:বড়পুকুরিয়া কয়লাখনি দুর্নীতি মামলায় অভিযোগ (চার্জ) গঠনের ওপর শুনানির জন্য  বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে বিশেষ আদালতে নেয়া হচ্ছে না। রোববার রাজধানীর বকশীবাজারে বিশেষ আদালত-২-এ বিডিআর বিদ্রোহের বিস্ম্ফোরক মামলা থাকায় আইনজীবীর মাধ্যমে এ দিন হাজিরা দেবেন তিনি।
খালেদা জিয়ার আইনজীবী বিএনপির আইনবিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়া জানিয়েছেন, বিডিআর বিদ্রোহের বিস্ম্ফোরক মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ থাকার কারণে বড়পুকুরিয়া কয়লাখনি মামলায় খালেদা জিয়াকে হাজির করা হবে না। ডিআইজি প্রিজন ও উপ-পুলিশ কমিশনার (প্রসিকিউশন) উভয়ই বিষয়টি তাকে জানিয়েছেন। আইনজীবীর মাধ্যমে তাকে (খালেদা) হাজির দেখানো হবে।Banglar Chokh Photo - 120160425104729
আদালত সূত্রে জানা গেছে, বড়পুকুরিয়া কয়লাখনি দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়াকে আদালতে হাজির করতে গত ১২ ফেব্রুয়ারি হাজিরা পরোয়ানা জারি করা হয়। এ সংক্রান্ত নথি কারাগারে পাঠানো হয়েছিল।
সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে ২০০৮ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়া এবং তার মন্ত্রিসভার ১০ সদস্যসহ ১৬ জনের বিরুদ্ধে বড়পুকুরিয়া কয়লাখনি দুর্নীতি মামলা হয়। ওই বছর ৫ অক্টোবর আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেয় দুর্নীতি দমন কমিশন। এতে বলা হয়, চীনা প্রতিষ্ঠান কনসোর্টিয়াম অব চায়না ন্যাশনাল মেশিনারিজ ইম্পোর্ট অ্যান্ড এপপোর্ট করপোরেশনের (সিএমসি) সঙ্গে বড়পুকুরিয়া কয়লাখনির উৎপাদন, ব্যবস্থাপনা ও রক্ষণাবেক্ষণ চুক্তি করার মধ্য দিয়ে আসামিরা রাষ্ট্রের প্রায় ১৫৮ কোটি ৭১ লাখ টাকা ক্ষতি করেছে।
গত ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেন ঢাকার বিশেষ জজ আদালত। আদালতের রায়ের পর তাকে ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডে সাবেক কেন্দ্রীয় কারাগারে নেওয়া হয়। এখন তিনি সেখানেই আছেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.