শ্রীলঙ্কার মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ

401

বাংলাদেশ:বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার লড়াইয়ে পিছিয়ে পড়ে ফিরে আসার সর্বশেষ দৃষ্টান্তটি কিন্তু বাংলাদেশের। গতবছর শ্রীলঙ্কার মাটিতে দুই ম্যাচের টেস্ট ও টি-টুয়েন্টি সিরিজে পিছিয়ে থেকেও ফিরে এসে সমতাতেই সিরিজ শেষ করেছিল টাইগাররা। তবে সে সময় তামিম-মুশফিকদের জয়ের টোটকা দেয়া চন্ডিকা হাথুরুসিংহে এখন লঙ্কানদের কোচ। যিনি জেতাতে পারেন, তিনি এটাও জানেন কিভাবে জয় পাওয়া রুখতে হয়। বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের মনস্তত্ত্ব যে ভালই বোঝেন তা তিনি স্বীকারও করেছেন। আর সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে এখন পর্যন্ত কোন আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেনি বাংলাদেশ। i_1একই দলের বিপক্ষে ত্রিদেশীয় ও টেস্ট সিরিজ এবং প্রথম টি-টুয়েন্টিতে হারার পর রোববার বিকেল ৫টায় সিরিজের শেষ ম্যাচে ফেরাটা সহজ হবে কি বাংলাদেশের জন্য?
প্রথম ম্যাচে ব্যাটিংটা ভালই করেছিল বাংলাদেশ। সৌম্য সরকার ও মুশফিকুর রহমানের দুই ফিফটি ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের ৪০ ছাড়ানো স্কোরে নিজেদের সর্বোচ্চ ১৯৩ রান সংগ্রহ করেছিল তারা। চার ক্রিকেটারের অভিষেক হলেও একমাত্র বাঁহাতি স্পিনার নাজমুল ইসলাম অপু ছাড়া ভাল করতে পারেননি কেউ। এমনকি দলের প্রতিষ্ঠিত বোলারদের পারফরম্যান্সও ছিল খারাপ।
সিলেটে এখন পর্যন্ত ৬টি আন্তর্জাতিক টি-টুয়েন্টি অনুষ্ঠিত হয়েছে। যার একটি ছাড়া সবগুলোতেই পরে ব্যাট করা দল জিতেছে। আর পেসাররা একটু বেশি সুবিধা পেয়েছেন এই পিচ থেকে। সুতরাং, ম্যাচ জিতে সিরিজ ড্র করতে হলে জ্বলে উঠতে হবে বোলারদেরই।
এই ম্যাচে ফিরছেন ড্যাশিং ওপেনার তামিম ইকবাল। তিনি ও সৌম্য সরকার একটি ভাল শুরু এনে দিতে পারলে বাংলাদেশ আবার বড় একটি সংগ্রহ পেতে পারে। এছাড়া পঞ্চম উইকেটকিপার হিসেবে টি-টুয়েন্টিতে ৫০ ডিসমিসাল হতে আর দুটি ডিসমিসাল প্রয়োজন মুশফিকুর রহীমের। এখন ব্যর্থ একটি সিরিজের শেষটা জয় দিয়ে রাঙাতে পারলে যে লাভ বাংলাদেশেরই!

Leave A Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.