স্ত্রীর পরামর্শেই টিলারসন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

152

মিনারা হেলেন, নিউ ইয়র্কঃ  স্ত্রীর পরামর্শেই মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হয়েছেন বলে উল্লেখ করেছেন রেক্স টিলারসন।

rex-tillerson

পররাষ্ট্রমন্ত্রী হওয়ার ব্যাপারে প্রস্তাব পাওয়ার পর দ্বিমত থাকলেও স্ত্রীর পরামর্শে ট্রাম্প প্রশাসনের প্রধান কূটনীতিকের প্রস্তাবটি গ্রহণ করেছের এক্সন মোবিলের সাবেক প্রধান টিলারসন।
টিলারসনের আগে কোনো রাজনৈতিক অভিজ্ঞতাই ছিল না। আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাতকারে টিলারসন বলেন, আমি এই চাকরি চাইনি, এর সন্ধানও করিনি। আমি বরং নাতি-নাতনীদের সঙ্গে থাকতে খামার বাড়িতে যাওয়ার পরিকল্পনা করছিলাম। কিন্তু আমার স্ত্রী বললো, আমার এই চাকরিটিই করার কথা।
৪০ বছর এক্সন মোবিলে কাটানো টিলারসন আগামীকাল বৃহস্পতিবার ৬৫ বছরে পা দিতে যাচ্ছেন।

টিলারসন বলেন, নভেম্বরের নির্বাচনের আগে কখনো ট্রাম্পের সঙ্গে তার দেখা হয়নি। যখন নির্বাচনে জেতার পর তাকে ডাকলেন, তখন টিলারসন ভেবেছিলেন তেল কোম্পানিতে অভিজ্ঞতার প্রেক্ষাপটে বিশ্ব সম্পর্কে তার অভিজ্ঞতা জানতে চাইবেন ট্রাম্প।
তিনি আরও বলেন, ‘যখন আলোচনার শেষে আমাকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী হওয়ার প্রস্তাব দেওয়া হল আমি হতবিহ্বল হয়ে গিয়েছিলাম। তখন স্ত্রী রেন্টা সেন্ট ক্লেয়ারকে এই বিষয়ে বললে সে বলে, আমি তোমাকে বলেছিলাম তোমাকে নিয়ে স্রষ্টার পরিকল্পনা শেষ হয়নি। সে আমাকে বোঝালো আমার এই প্রস্তাব গ্রহণ করা উচিত, সে সঠিক ছিল। স্ত্রীর পরামর্শে পররাষ্ট্রমন্ত্রী হওয়ায় তিনি তার স্ত্রী রেন্টা সেন্ট ক্লেয়ারকে অশেষ ধন্যবাদ জানান।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.